ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে বরিশালে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি, ভোগান্তিতে মানুষ হাফ ভাড়ার দাবীতে বরিশালে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ বরিশালে এক মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল প্রথম কন্যা সন্তানের বাবা হলেন বরিশালের সাংবাদিক জিহাদ রানা ইবিতে সাহিত্য সম্ভার কতৃক সাহিত্য মজলিস ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত বরিশালে সবজির দাম কিছুটা কম, চালের দাম কিছুটা ঊর্ধ্বমুখী ৮ ডিসেম্বর থেকে বরিশালের চরমোনাইতে মাহফিল শুরু ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদে তালতলীর শুঁটকি পল্লীর জেলেদের বড় ধরনের ক্ষতির আশঙ্কায় মুরাদনগর ছাত্রকল্যাণ পরিষদের সপ্তম বছরে পদার্পণ ৫ বছরেও চালু হয়নি বরিশালে শতকোটি ব্যয়ের পানি শোধনাগার ধূমপানে সীসার জন্ম অতঃপর মৃত্যু বরিশালে প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে আর্থিক সহায়তা বিতরণ বরিশাল-চট্টগ্রাম রুটে প্রথম ট্রিপেই নৌযান চলাচলে দুর্ভোগে যাত্রীরা বরিশাল র‌্যাব-৮'র অভিযান : অস্ত্র-গোলাবারুদসহ পাঁচ জলদস্যু আটক কুড়িগ্রামে আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালন ৫ বছর প্রেম, অত:পর বিয়ের পিঁড়িতে বর-কনে কক্সবাজার বিমানের ধাক্কায় গরু নিহত: বিমানবন্দরে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ শুরু বরিশালে নবাগত ইউএনওকে নবাগত ইউপি চেয়ারম্যানের শুভেচ্ছা ববি’র ১২তম স্নাতক গণিত অলিম্পিয়াড’র পুরস্কার বিতরণ বরিশালে ২৫ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক

মাল্টা চাষে সফলতা পেয়েছেন ওসমান

শেখ মো.ইব্রাহীম - সরাইল প্রতিনিধি

প্রকাশের সময়: 22-10-2021 12:48:30

Photo caption :

শেখ মোঃ ইব্রাহীম, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া: 

মাল্টা পাহাড়ি ফল হিসেবে পরিচিত হলেও সমতল ভূমিতে রয়েছে এ ফলের ব্যাপক সম্ভাবনা। বাণিজ্যিকভাবে এ দেশের মাটিতে চাষ হচ্ছে বারি-১ জাতের মাল্টার। মাটির গুনাগুন মান ও চাষ পদ্ধতি ঠিক থাকলে মাল্টা চাষ করে লাভবান হতে পারেন কৃষকরা। কোনো ধরনের রাসায়নিক ছাড়া সবুজ রঙের মাল্টা স্বাদে ও মানে ভালো হওয়ায় বাজারে এর চাহিদাও বেশি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলায় এবছর থেকে প্রথম মাল্টা চাষ হচ্ছে। এ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন উপজেলার সদর ইউনিয়নের বড্ডাপাড়া গ্রামের চাষি ওসমান খান। প্রতিটি গাছে ঝুলছে রসালো সবুজ মাল্টা। কিছু দিন পরই পরিপক্ক হবে মাল্টাগুলো। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবার ওই বাগান থেকে আরো ৩০-৩৫ হাজার টাকার মাল্টা বিক্রি করবেন বলে তিনি আশা করেন। প্রথমবার সফলতা পাওয়ায় এবছর আরো ৩০ শতাংশ জমিতে নতুন করে মাল্টা চাষ শুরু করবেন তিনি। কৃষক ওসমান খান জানান, সরাইল কৃষি অফিসের সহযোগিতায় ১৫ শতক জমিতে বারি-১ জাতের ৬৩টি মাল্টার চারা রোপণ করেন। এক বছরের মধ্যেই মাল্টা গাছে ফলন ধরেছে। ৮ মাস পর মাল্টা বাজার জাতকরণ করা যায়। প্রতি কেজি মাল্টা ৮০-৯০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করবেন বলে আশা করেন। প্রতি গাছে গড়ে ৩০-৩৫ কেজি মাল্টা ধরেছে ।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রায়হান পারভেজ রনি বলেন, বারি-১ জাতের মাল্টা চাষের ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে এ এলাকায়।



Tag