চট্টগ্রামে ১৪ দলের গণসমাবেশে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ আহত ১০ উলিপুরে গৃহ বধুর রহস্যজনক মৃত্যু ‍"দশ টাকায় তিন চোখঁ" শ্রীমঙ্গলে সবুজ চাদরে ঢাকা নৈসর্গিক সৌন্দর্যে ঘেরা হজম টিলা খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় গবেষণাগারের ওয়েবসাইট উদ্ভোধন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে নৈতিকতা কমিটির শুদ্ধাচার সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত যশোরে দৈনিক গ্রামের কণ্ঠের প্রকাশক ও সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলার ঘটনায় বিএমএসএস'র নিন্দা ও প্রতিবাদ মাঝ সাগর থেকে ২১ জেলে উদ্ধার চকরিয়ায় পুকুরে পড়ে শিশুর মৃত্যু টেকনাফে র‌্যাবের অভিযানে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা ডাকাত সর্দার এক সহযোগীসহ গ্রেফতার নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে সাজা ও পরোয়ানাভূক্ত আসামী গ্রেফতার আশাশুনিতে পারিবারিক পুষ্টি বাগান বিষয়ক প্রশিক্ষণ আশাশুনিতে দুর্নীতি বিরোধী র‌্যালী ও আলোচনা সভা বুধহাটা গ্রামের বাসুদেব আর নেই। রাসিক ১নং ওর্য়াড পুর্নাঙ্গ মডেল ওয়ার্ড গড়ার জন্য আরেকবার সুযোগ চেয়েছেন কাউন্সিলর প্রার্থী রজব বাঁশখালীতে স্ত্রীর ইজ্জত বাঁচাতে গিয়ে লম্পটের হাতে স্বামী খুন। শ্রীমঙ্গলে বিশ্ব তামাক মুক্ত দিবস পালিত ‘কাজুবাদাম’ চাষ পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও বাঁশখালীতে স্ত্রীর ইজ্জত বাঁচাতে গিয়ে লম্পটের আঘাতে স্বামী খুন। শেরপুর সদর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পাওয়ার পর যা বললেন আশরাফুল আলম মিজান

জাপান বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু: স্পিকার

হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভস অব জাপানের স্পিকার হিরোইউকি হসোদার সঙ্গে বৃহস্পতিবার জাপানের পার্লামেন্টে (ডায়েট) অবস্থিত স্পিকার্স কনফারেন্স কক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। 


সাক্ষাতকালে তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাম্প্রতিক জাপান সফর, জাপান বাংলাদেশ কূটনৈতিক সম্পর্কের পঞ্চাশ বছর, বাংলাদেশে জাপানের বিনিয়োগ বৃদ্ধি, মানবসম্পদ উন্নয়ন, দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক শক্তিশালীকরণ, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। 


শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, জাপান বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু। ১৯৭৩ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাপান-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ভিত স্থাপন করেন, যা ইতোমধ্যে পঞ্চাশ বছর অতিবাহিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাম্প্রতিক জাপান সফর জাপান-বাংলাদেশ পঞ্চাশ বছরের কূটনৈতিক সম্পর্ককে নতুন মাত্রা দিয়েছে। জাপান বাংলাদেশের অন্যতম উন্নয়ন অংশীদার। রাজধানী ঢাকায় মেট্রোরেল জাপান-বাংলাদেশ সম্পর্কের অনন্য মাইলফলক। 


এ সময় ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার এবং তথ্য-প্রযুক্তি, মানবসম্পদ উন্নয়ন ইত্যাদি ক্ষেত্রে জাপানকে অধিকতর বিনিয়োগের আহ্বান জানান স্পিকার। 


২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত ‘ডব্লিউ ও ডব্লিউ কনফারেন্স’-এ শিরীন শারমিন চৌধুরীর জাপান সফর স্মরণ করে হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভস অব জাপানের স্পিকার হিরোইউকি হসোদা বলেন, জাপান বাংলাদেশ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আগামী দিনে আরও জোরদার হবে। এ ধরনের সংসদীয় সফর বিনিময় দুদেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করবে। 


সাক্ষাৎ শেষে শিরীন শারমিন চৌধুরীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের সংসদীয় প্রতিনিধি দল জাপানের পার্লামেন্ট পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে শিরীন শারমিন চৌধুরীকে জাপানের সংসদীয় কার্যক্রমের সার্বিক প্রক্রিয়া সম্পর্কে অবহিত করেন হসোদা। 


অতঃপর শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে টোকিওর হোটেল ক্যাপিটলে জাপান-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ লীগের প্রেসিডেন্ট আসো তারো সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। 


সাক্ষাতকালে স্পিকার বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের অব্যবহিত পর থেকেই অবকাঠামোগত উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন, পানি ব্যবস্থাপনা, সেনিটেশন, রাস্তা-ঘাট নির্মাণ ও সংস্কার ইত্যাদি ক্ষেত্রে জাপান বাংলাদেশকে সহায়তা করে আসছে। জাপান বর্তমানে বাংলাদেশের একক বৃহত্তম উন্নয়ন অংশীদার। কোভিড মহামারিকালীন ভ্যাক্সিন প্রদানের মাধ্যমে জাপান বাংলাদেশকে সহায়তা করেছে।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশে দারিদ্র্য দূরীকরণ, নারীর ক্ষমতায়ন ইত্যাদি অর্জনের পাশাপাশি অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে। বাংলাদেশ এখন ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড এর মধ্য দিয়ে যাচ্ছে যার তরুণ জনসমষ্টি অত্যন্ত দক্ষ। 


তাদের অমিত সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে তথ্য-প্রযুক্তি খাতে জাপানের অধিকতর বিনিয়োগ কামনা করেন স্পিকার। 


এরপর হাউস অব কাউন্সিলরস অব জাপানের প্রেসিডেন্ট হিদেহিসা ওতসুজির সঙ্গে শিরীন শারমিন চৌধুরী সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। 


সাক্ষাতকালে স্পিকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে দারিদ্র্য দূরীকরণ, নারীর ক্ষমতায়ন, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচিসমূহের বাস্তবায়ন, শতভাগ বিদ্যুতায়ন, ল্যাকটেটিং মায়েদের ভাতা প্রদান, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প বাস্তবায়ন ইত্যাদি কার্যক্রম সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। বাংলাদেশের উন্নয়নে জাপানের অগ্রণী ভূমিকা রয়েছে। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে জাপান অধিক বিনিয়োগ করতে পারে। লিঙ্গ বৈষম্য, জলবায়ু পরিবর্তন ইত্যাদি ক্ষেত্রে দুদেশ একসঙ্গে কাজ করতে পারে। 


এ সময় দুই দেশের সংসদীয় সম্পর্ক আরও জোরদারকরণে গুরুত্বারোপ করেন স্পিকার।

 

প্রথম নারী স্পিকার হিসেবে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর প্রশংসা করে প্রেসিডেন্ট হিদেহিসা ওতসুজি বলেন, বাংলাদেশ নারীর ক্ষমতায়নে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাম্প্রতিক জাপান সফরের মাধ্যমে দুদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও দৃঢ় হয়েছে।

 

সবশেষে শিরীন শারমিন চৌধুরী হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভস অব জাপানের স্পিকার হিরোইউকি হসোদার আমন্ত্রণে নৈশভোজে অংশগ্রহণ করেন।


সাক্ষাতকালে ইবায়াসি তাতসুনোরি এমপি, কাজিয়ামা হিরোসি এমপি, সুকাডা ইসিরো এমপি, মাকিসিমা কেরেন এমপি, ইয়ামামোতো হিরোনরি এমপি, জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমদ, আ ফ ম রুহুল হক এমপি, আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী এমপি, বদরুদ্দোজা মো. ফরহাদ হোসেন এমপি, খাদিজাতুল আনোয়ার এমপি ও কানিজ ফাতেমা আহমেদ এমপি উপস্থিত ছিলেন। 


এছাড়া অতিরিক্ত সচিব মো. নূরুজ্জামান, স্পিকারের একান্ত সচিব অতিরিক্ত সচিব এমএ কামাল বিল্লাহ, যুগ্মসচিব মো. তারিক মাহমুদ এবং স্পিকারের সহকারী একান্ত সচিব উপসচিব মো. রাশেদ ইকবাল চৌধুরী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর