শেষ পর্যন্ত দর্শকশূন্য মাঠেই হচ্ছে বিপিএল ৬ বছরেও বেসিকের মামলার তদন্ত শেষ করতে দুদক ‘ব্যর্থ’: হাইকোর্ট সিআইপি কার্ড পেলেন ১৭৬ ব্যবসায়ী খানজাহানের বসতভিটা খননে বেরিয়ে আসছে বহু পুরোনো প্রত্নবস্তু আইপিটিভি ও ইউটিউবে সংবাদ প্রচার করলে ব্যবস্থা শেষ হলো তিনদিনের ডিসি সম্মেলন পল্লবী থানার ওসিসহ ১৭ পুলিশের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন দুর্ঘটনা রোধে মহাসড়কে গাড়িতে থাকবেন দু’জন চালক! নিউইয়র্কে চোখের পলকে গাড়ি চুরি শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডির জন্য ৪ নির্দেশনা মার্কিন ফেডারেল কোর্টের বিচারপতি হলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নুসরাত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হলেই সাংবাদিককে গ্রেফতার নয়, ডিসিদের আইনমন্ত্রী দুর্নীতি রোধে ডিসিদের সহযোগিতা চাইলো দুদক ব্যাংকারদের সর্বনিম্ন বেতন বেঁধে দিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক র‌্যাবের প্রতি অবিচার হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ চা উৎপাদন এমপিওভুক্ত হলেন ২২৭৮ শিক্ষক-কর্মচারী শান্তিরক্ষা মিশনে র‌্যাবকে নিষিদ্ধের দাবিতে ১২ সংস্থার চিঠি পাকিস্তানে ব্যস্ত বাজারে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ৩ ২৪ লাখ টাকা আত্মসাৎ: দুই কাস্টম কর্মকর্তা কারাগারে

প্রক্সি দিতে এসে বুয়েট শিক্ষার্থী আটক

Tahirul Hasan Fahim - শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি) প্রতিনিধি

প্রকাশের সময়: 29-11-2021 14:27:14

Photo caption :


 শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শেকৃবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ২৭ নভেম্বর  অনুসঠিত সমন্বিত কৃষি গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় অন্যজনের বদলে প্রক্সি দিতে আসা সেই শিক্ষার্থী বুয়েটের বলে তদন্তে বেরিয়ে এসেছে।তার নাম আরমান সাইদ, বুয়েটের বস্তু ও ধাতব কৌশল বিভগের শেষ বর্ষের ছাত্র।


শনিবার শেখ কামাল ভবনের ৯০১নং কক্ষ থেকে আটক করা হয় আরমান সাইদ নামের ওই নকল শিক্ষার্থীকে। আটকের পর প্রথমে নিজের নাম-পরিচয় মিথ্যা বলে ওই শিক্ষার্থী। পুলিশি জেরায় পরবর্তীতে জানা যায়, ভর্তি পরীক্ষার্থী তানভীর হাসানের পরিবর্তে পরীক্ষা দিতে আসেন মো. আরমান সাইদ। তিনি বুয়েটের নজরুল ইসলাম হলের ২০৪ নাম্বার রুমের আবাসিক ছাত্র। তার বাড়ি নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর থানার খোর্দ্দ নারায়ণপুর গ্রামে। তার পিতার নাম ফারুক হোসেন এবং মাতার নাম আরজু আরা।


অন্যদিকে পরীক্ষায় অংশ না নেওয়া আসল পরিক্ষার্থী তানভীর হাসান। সে রংপুর ক্যান্টনমেন্ট কলেজের ছাত্র ছিল। তার বাড়ি রংপুর সদর উপজেলায়। পিতার নাম মাহাবুর আলম।


বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর জানান,আসল পরীক্ষার্থীর সঙ্গে আসামি আরমান সাইদের ছবির মিল না পাওয়ায় হলের দায়িত্বে থাকা শেকৃবির উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. খুরশিদা পারভিন আমাদের খবর দেন।


প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরমান সাইদ সরকার প্রক্সির বিষয়টি স্বীকার করলেও নিজের নাম-পরিচয় ভুল দেন। ২০ হাজার টাকার চুক্তিতে ভর্তি পরীক্ষায় বদলি হিসেবে অংশ নিয়েছেন বলে তিনি স্বীকার করেন। প্রক্টর ড. হারুনুর রশিদ বলেন, আমরা পুলিশ দিয়ে মামলা দিয়েছি; যা ব্যবস্থা নেওয়ার তারা নেবে।


Tag