সারাদেশে চলাচলকারী আন্তঃনগর ট্রেন বন্ধ থাকবে ঈদের দিন লেগেছে ঈদের আঁচ,অভয়নগরে টুংটাং শব্দে মুখরিত কামারপাড়া জয়পুরহাটে ৫ শত বছরের ঐতিহ্যবাহী ঘুড়ির মেলা মিয়ানমারে সীমান্তে নেই বিস্ফোরণের শব্দ, সরে গেছে যুদ্ধজাহাজও অনিরাপদ ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাট শ্যামনগরে সুবিধাবঞ্চিত মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে 'ভাব বাংলাদেশে'র শিক্ষাবৃত্তি প্রদান টিকিট থাকা সত্ত্বেও চড়া দামে বিক্রি, বিপাকে যাত্রীরা পত্নীতলায় ভুটভুটির ধাক্কায় প্রাণ গেল এক বৃদ্ধের সেবা মুক্ত স্কাউট দলের উদ্যোগে দরিদ্র ও দুস্থ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ দুই শতাধিক পরিবারের মুখে হাসি ফুটালো ‘ভয়েস অব ঝিনাইগাতী’ শিকড় ঝিনাইগাতীর আয়োজনে ঈদুল আযহার পরদিন এসএসসি ও এইচএসসিতে কৃতিত্ব অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংবর্ধনা ও পুরস্কার দেওয়া হবে সড়ক দুর্ঘটনায় শেরপুর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবু তাহের গুরুতর আহত, সুস্থতার জন্য সকলের নিকট দোয়া প্রার্থী সাতক্ষীরায় ২৪১ জনকে ১৭ লাখ ৮৪ হাজার টাকার অনুদানের চেক প্রদান ঈদের ছুটিতে পর্যটক বরণে প্রস্তুত কক্সবাজার টেকনাফ সমুদ্র সৈকতে ভেসে এলো অর্ধগলিত মৃতদেহ সেন্টমার্টিনের নাগরিকদের পাশে সরকার সবসময় আছে ঈদে ঘরমুখো মানুষ,যাত্রীদের ভীড় কম কক্সবাজার বাস টার্মিনালে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আদর আলী রূপগঞ্জে তিন সহস্রাতিক দরিদ্র মানুষের মধ্যে ঈদসামগ্রী বিতরণ ভোট চুরি করে কেউ ক্ষমতায় থাকতে পারে না: প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশে গণতন্ত্র হত্যার কলঙ্কজনক অধ্যায় জিয়ার হ্যাঁ-না ভোট : সজীব ওয়াজেদ জয়

◾ বাসস ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা ও বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকে নির্মমভাবে সপরিবারে হত্যার পর অবৈধভাবে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করে তা পাকাপোক্ত করতে ন্যাক্কারজনকভাবে হ্যাঁ-না ভোটের আয়োজন করেছিলেন জেনারেল জিয়া।

সজীব ওয়াজেদ জয় আজ তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে বলেন, তার (জিয়া) লোক দেখানো সেই হ্যাঁ-না ভোটের আগে কোনো মিটিং মিছিল পর্যন্ত হয়নি। ছিল না পরিচিতি ও প্রচারের ব্যবস্থা।  

তিনি বলেন, রাস্তাঘাটে রিকশা-বাসে এবং মানুষের ব্যক্তিগত যানবাহনে জোর করে সামরিক পোশাক পরিহিত জেনারেল জিয়ার পোস্টার সাঁটিয়ে প্রচারণার নামে এক ধরণের আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়েছিল। 

বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র বলেন, ভোটের দিন ভোটারবিহীন ভোটকেন্দ্রে মানুষ খুঁজে না পেয়ে শেষ পর্যন্ত অনেক শিশুকেও জোর করে ভোট দিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। দিন শেষে ঘোষণা আসে, ৯৯ দশমিক ৪ ভাগ ভোট পেয়ে একচেটিয়াভাবে জয় লাভ করেছেন জেনারেল জিয়া! তার বিপক্ষে কেউ ভোট দেয়নি!! এই হাস্যকর নির্বাচন এবং এর আগের-পরের ঘটনাপ্রবাহ বাঙালির ইতিহাসের অমোচনীয় কলঙ্কময় অধ্যায়।

তিনি বলেন, অতঃপর রাষ্ট্রীয় প্রবিধানকে পাশ কাটিয়ে সেনাপ্রধান ও রাষ্ট্রপতির দায়িত্বে থাকা অবস্থাতেই জিয়া নিয়মবর্হিভূতভাবে গঠন করেন রাজনৈতিক দল 'বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)'। 

তিনি আরো বলেন, সেই দলের হয়ে ১৯৭৮ সালের তথাকথিত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে অংশ নেন এবং নিজেকে বিজয়ী ঘোষণা করেন। এই নির্বাচনে জিয়া কোনো কোনো এলাকায় ১২০ ভাগ ভোট পেয়েছেন বলেও বিভিন্ন বিদেশি গণমাধ্যম প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল।

আরও খবর