রোহিঙ্গাদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে মারা গেল ৪ জন সরিষাবাড়িতে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন । নৌকার বিরুদ্ধে নির্বাচনী প্রচারণায় এসে জনগনের রেশানলে এলাকা ছাড়া পুলিশের এসআই উন্নয়ন হয়েছে বলেই মানুষ এখন ত্রাণের বদলে বাঁধ চায়: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির নানান আয়োজনে বরিশালে কবি জীবনানন্দ দাশ’র প্রয়ান দিবস পালিত বরিশালে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন ঝিনাইগাতীতে ১৪ বছর যাবত উল্টে আছে সেতু, সংস্কারের উদ্যোগ নেই শেরপুর জেলা ফুটবল লীগে চকপাঠক ক্রীড়াচক্র ৪-২ গোলে জয়ী। নিরাপদ সড়ক দিবসের দিন সড়কে প্রাণ ঝড়ল শিশুর। মাল্টা চাষে সফলতা পেয়েছেন ওসমান বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি'র ইডেন মহিলা কলেজে পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন। পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা সেই ইকবাল আটক এই প্রথম আমাদের পাশে কোন মেয়র দাড়ালেন, তিনি হলেন গরীবের বন্ধু বরিশালের মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ্ ভাই ইসলাম কখনোই সাম্প্রদায়িকতা সমর্থন করে না : বিএমপি কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বাংলাদেশ সম্পাদক ফোরাম বরিশাল’র নেতৃবৃন্দের সাথে ফোরথট পিআর কর্মকর্তাদের সাক্ষাৎ আসাদুজ্জামান সাদিদের দায়িত্ব নিলেন বরিশাল জেলা প্রশাসক পরিমাপে কারচুপির অপরাধে বরিশালে দুটি তেলের পাম্পমালিককে জরিমানা ৮৪ রানের জয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে বাংলাদেশ পাপুয়া নিউগিনিকে ১৮২ রানের টার্গেট দিল বাংলাদেশ

বাবা-মাকে অবহেলা নয়: আগলে রাখুন পরম মমতায়

সায়েম আহমাদ - এডিটর

প্রকাশের সময়: 16-09-2021 00:12:18

Photo caption : সংগৃহীত ছবি



"মা" অতি মায়াভরা একটি শব্দ, যার কাছে পৃথিবীর সব কিছু হার মানে। পৃথিবীর সবচেয়ে মধুরতম শব্দ মা। যে শব্দের মধ্যে পৃথিবীর সকল সুখ-শান্তি, আনন্দ ভালোবাসা এবং সকল মায়া জড়িত। মায়ের ভালোবাসা সীমাহীন। সন্তানকে গড়ার নিপুন কারিগর হিসেবে বিবেচিত এবং একইসাথে সবচেয়ে দক্ষ অলরাউন্ডার মা। মায়ের মতো ত্যাগি এই ভবে আর কেউ নন। মায়ের মত এমন সীমাহীন ভালোবাসা আর কেউ দিতে পারেনা। "মা" শব্দটির মাঝে রয়েছে বিশেষ এক শক্তি যে শক্তির কাছে পৃথিবীর সকল ভয় বিপদ তুচ্ছ। অথচ আমরা বড় হতে না হতেই ভুলে যাই সেই মায়ের কথা। মা কত যুদ্ধ করে আমাদের পৃথিবীর আলো দেখানোর জন্য। মায়ের গর্ভে যখন একটি শিশু বড় হয় তখন মায়ের যে কতগুলো দিন কষ্ট সহ্য করতে হয়, কতই না আঘাত সহ্য করতে হয়। তারপরেও মা হাসিমুখে সব সহ্য করে নেয় আর স্রষ্টার কাছে একটি প্রার্থনা করে তার সন্তান টা যেন ভালোভাবে সুস্থমতো পৃথিবীতে আসে। আর মায়ের প্রসব যন্ত্রনা এতটাই কষ্টকর পৃথিবীর কোন ব্যথা এটার সমতুল্য নয়। তাইতো গায়িকারা গান বেধেছে.... 

 "মায়ের ও প্রসবের কালে বুক ভেসে যায় নয়ন জলে গো, বলে আমায় আল্লাহ যাও গো লইয়া সন্তানেরে নিওনা। দুখের দরদি আমার জনম দুখি মা।"


 মায়ের ঋন কখনো শোধ করার মত না মা এত কষ্ট শহ্য করে আর আশায় থাকবে কখন তার সন্তানটিকে দেখবেন। সন্তান কালা - ধলা যেমনি হোক না কেন ওটাই মায়ের কাছে শ্রেষ্ঠ উপহার। মা নিজে ভিজা স্থানে ঘুমায় সন্তানকে শুকনোতে রাখে। সন্তানের যেন ঘুমাতে কষ্ট না হয়, মা না খেয়ে সন্তান খাওয়াই। সন্তান অসুস্থ হলে সারা দিন রাত এক করে তার সেবা করে আর চোখ ভেসে যায় নয়ন জলে আর প্রাথনা করতে থাকে তাড়াতাড়ি যেন সুস্থ হয়ে যায়। এই সেই মা এত কষ্টের বিনিময়ে একটাই চাওয়া সন্তানটি যেন ভালো থাকে । মা নিজে সব কষ্ট সহ্য করে নেয় শুধু সন্তানের হাসিভরা মুখটি দেখলে। মা সারাদিন সংসার সামলিয়ে হাজারো রাত জেগে খাবার নিয়ে অপেক্ষা করে সন্তানের জন্য একটুও বিরক্ত হন না। রাস্তায় হাজারো মাকে দেখা যায় মা এবং সন্তান কে ফেলে রেখে চলে গেছেন বাবা, কিন্তু মা তার সন্তান কে বুকে আকড়ে রেখে ভিক্ষা করছে।কিছুদিন আগে লঞ্চ ডুবার একঘটনায় দেখা গেছে একটা শিশু খুজে পাওয়া যাচ্ছে না তাই তার মা নিজে নদীতে ঝাপ দিয়েছেন সন্তানকে খুজার জন্য শেষে মা ও সন্তানের লাশ খুজে পাওয়া গিয়েছে।এই জনম দুঃখি মা নিজের জিবন বাজী রেখেছেন সন্তানের জন্য। 


শুধু মানুষের মধ্যে এমন কিছু ঘটছে তা কিন্তু নয় বরং প্রাণিজাতির মধ্যেও একই ঘটনা।‌ তারাও তাদের সন্তান আগলে রেখে খুব যত্নে। এই যে মাকড়সা সারাবছর নিজের মধ্যে রস জমিয়ে রাখে সন্তানের জন্য, যেন সন্তানের খাবারে কষ্ট না পায়। একটা সময় এসে নিজেই নিজের সন্তানের খাদ্য হয়ে সন্তান কে বাচিয়ে রাখে। কিন্তু বড়ই দুঃখের বিষয় এই যে এত এত বিসর্জন সত্বেও আমরা সে মাকে প্রতিদান দেই শেষ বয়সে বিদ্যাশ্রম, অথবা বাড়ির এক কোনে পড়ে থাকা পরিত্যাক্ত রুম। তা সত্বেও মা হাসিমুখে আমাদের প্রার্থনা করে যায়।এমনকি সন্তানের যখন শেষ বয়সে আশ্র‍য় হয় ওই একি বিদ্যাশ্রমে তখন ও মা সন্তান্টিকে বুকে টেনে নিয়ে বলে আয় বাবা আয়। এখন হাজারো খবরে দেখা যায় সন্তানের হাতে মায়ের খুন। মা কি এই দিনের জন্য সন্তানকে বড় করেছে?? এত কষ্ট সহ্য করেছে শেষ বয়সে খুন হওয়ার জন্য? 


মায়ের গুরুত্ব নিয়ে হাদিসে মহানবী (সাঃ) বলেছেন -" মায়ের পায়ের তলে সন্তানের বেহেশত "। কিন্তু বড়ই পরিতাপের বিষয় সন্তান কে মা বাবার ভরণপোষণ বাধ্য করতে সরকারকে আইন করতে হচ্ছে। অথচ এই মা সন্তান কে একাই যুদ্ধ করে দুনিয়ার আলো দেখিয়েছে। সন্তানের জন্য সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ আশ্রয় কেন্দ্র হলো মায়ের আচল। আর শেষ বয়সে সেই মায়ের আশ্র‍য় হয় বৃদ্ধাশ্রম। মায়ের মুখের হাসির মাঝে লুকিয়ে আছে সুখ। মায়ের পায়ের নিচে রয়েছে বেহেস্ত। আমরা ভুলে যাই যে, বাবা মা বৃদ্ধ হলে তারা শিশু হয়ে যায়। সুতারং, সন্তানের উচিত বাবা মায়ের প্রতি যত্নশীল হওয়া। আমরা যদি বাবা মায়ের প্রতি যত্নশীল হই, তাহলে হয়তো তারা শেষ বয়সে একটু ভালোবাসা আর আনন্দের সহিত জীবন যাপন করতে পারবে। কাজেই বাবা মায়ের সেবার মাধ্যমে গড়ে উঠতে পারে সুখ শান্তি সমৃদ্ধ পরিবার ও জাতি। তাই আসুন, মা বাবাকে পরম মমতায় আগলে রাখি, সুন্দর ও আলোকিত জীবন গড়ি। 



লেখিকা: হাবিবাতুজ্জাহান সাথী

শিক্ষার্থী, ইংরেজি বিভাগ

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি।


Tag
আরও খবর


আমার একজন বড় ভাই আছেন

১৫ দিন ১২ ঘন্টা ৩৯ মিনিট আগে