রাঙামাটিতে বজ্রপাতে নারীসহ ৪ জনের মৃত্যু প্রধান শিক্ষক আবুজার গাফ্ফারীর ঘোড়ার গাড়ি করে বিদায়ী সংবর্ধনা সেন্টমার্টিনে ২৩’শ পরিবারের মধ্যে সরকারি সহায়তার চাল বিতরণ নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সাথে নাগরিক প্লাটফর্ম ও যুব ফোরামের সংলাপ অনুষ্ঠিত সারাদেশে চলাচলকারী আন্তঃনগর ট্রেন বন্ধ থাকবে ঈদের দিন লেগেছে ঈদের আঁচ,অভয়নগরে টুংটাং শব্দে মুখরিত কামারপাড়া জয়পুরহাটে ৫ শত বছরের ঐতিহ্যবাহী ঘুড়ির মেলা মিয়ানমারে সীমান্তে নেই বিস্ফোরণের শব্দ, সরে গেছে যুদ্ধজাহাজও অনিরাপদ ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাট শ্যামনগরে সুবিধাবঞ্চিত মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে 'ভাব বাংলাদেশে'র শিক্ষাবৃত্তি প্রদান টিকিট থাকা সত্ত্বেও চড়া দামে বিক্রি, বিপাকে যাত্রীরা পত্নীতলায় ভুটভুটির ধাক্কায় প্রাণ গেল এক বৃদ্ধের সেবা মুক্ত স্কাউট দলের উদ্যোগে দরিদ্র ও দুস্থ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ দুই শতাধিক পরিবারের মুখে হাসি ফুটালো ‘ভয়েস অব ঝিনাইগাতী’ শিকড় ঝিনাইগাতীর আয়োজনে ঈদুল আযহার পরদিন এসএসসি ও এইচএসসিতে কৃতিত্ব অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংবর্ধনা ও পুরস্কার দেওয়া হবে সড়ক দুর্ঘটনায় শেরপুর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবু তাহের গুরুতর আহত, সুস্থতার জন্য সকলের নিকট দোয়া প্রার্থী সাতক্ষীরায় ২৪১ জনকে ১৭ লাখ ৮৪ হাজার টাকার অনুদানের চেক প্রদান ঈদের ছুটিতে পর্যটক বরণে প্রস্তুত কক্সবাজার টেকনাফ সমুদ্র সৈকতে ভেসে এলো অর্ধগলিত মৃতদেহ সেন্টমার্টিনের নাগরিকদের পাশে সরকার সবসময় আছে

মধুমতী নদীর ভাঙন রোধ করতে যথাযথ ব্যবস্থা নিন



◾ শেখ আব্দুল্লাহ : মধুমতী নদী বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মাগুরা, ফরিদপুর, নড়াইল, গোপালগঞ্জ ও বাগেরহাটের উপর দিয়ে প্রবাহিত পদ্মা নদীর একটি শাখা নদী। শুষ্ক মৌসুমে নদীটির শান্তশিষ্ট অবস্থা দেখা গেলেও, বর্ষার মৌসুমে এ নদী ভয়াবহ রুপ ধারণ করে। নদীর নাব্যতা হারানোর কারনে অল্প বর্ষায় প্রতি বছর নদীর দুকূল প্লাবিত হয়ে যায় এবং প্রবল স্রোতের কারনে নদীর দুপাশের চাষাবাদের জমি ভেঙে নদীর গর্বে বিলীন হয়ে যায়। আর এ ভাঙনের রুপটা কিছু কিছু অঞ্চলে এতটা মাত্রাতিরিক্ত হারে দাড়ায়েছি যে, চাষাবাদের জমি ভেঙে এখন মানুষের শেষ সম্বল বসতির জমি ভেঙে নদী গর্বে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। আর মধুমতী নদীর প্রবল ভাঙনের এমনই একটি স্থান হলো গোপালগঞ্জ জেলার সুকতাইল ইউনিয়ন। সুকতাইলের ইউনিয়নের কোল ঘেঁসে চলে গেছে মধুমতী নদী। নদীর একপাশে হলো গোপালগঞ্জে সদর উপজেলার সুকতাইল গ্রাম এবং নদীর অপর পাশে হলো নড়াইল জেলার কালিয়া থানার অন্তর্গত পানিপাড়া গ্রাম। নদীর একপাশে পানিপাড়া গ্রামে নদী ভাঙন দেখা না গেলেও , নদীর আরেক পাশে সুকতাইলে ব্যাপক ভাঙন লক্ষ করা যায়। সুকতাইলের অনেক বাসিন্দা এখন নিজ চাষাবাদের জমি হারিয়ে সর্বশান্ত; কিন্তু সর্বনাশী মধুমতী এখনো শান্ত হয়নি, চাষাবাদি জমি ভাঙতে ভাঙতে এখন মানুষের বসতবাড়ীও ভাঙতে শুরু করেছে। আর এমতাবস্থায় সুকতাইল গ্রামের নদীর পাড়ে বসবাসকারি বাসিন্দারা তাদের শেষ আশ্রয়স্থল বসতভিটা নিয়ে অনিশ্চয়তায় ভুগছেন। কোথায় যাবেন তারা?


তাই কর্তৃপক্ষের কাছে সুকতাইলের সর্বস্তরের মানুষের দাবি মধুমতী নদী ভাঙন রোধ করার জন্য অতিসত্বর ব্যবস্থা নিন, নতুবা যতটুকু সম্ভাব্য নদীর পাড়ের মানুষের নতুন আবাসস্থল নিশ্চিত করুন।  


লেখক: শেখ আব্দুল্লাহ 

তরুণ কলাম লেখক 

আরও খবর