কোটা ইস্যুতে রোববার সুপ্রিম কোর্টে শুনানি, আশা করি সমাধান আসবে কারফিউয়ের সময়সীমা আরো বাড়ল কারফিউ প্রত্যাহার দাবি বিএনপির, আমির খসরু আটক কোটা আন্দোলনে কারফিউয়ের দিনেও ঢাকাতে ১০ জনের মৃত্যু বাংলাদেশের ছাত্রদের প্রতি সংহতি পশ্চিমবঙ্গে কোটা নিয়ে আপিল শুনানি রোববার চট্টগ্রাম ও রাজশাহী শহরের পরিস্থিতি নরসিংদীর কারাগারে হামলার পর পালিয়েছে আট শতাধিক আসামী শনিবার ঢাকায় কারফিউ-র যে চিত্র দেখা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর দুই বিদেশ সফর বাতিল বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম খান আটক সরকারের কাছে 'আট দফা দাবি' কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের: ‘শাটডাউন’ কর্মসূচি চলবে নুরুল হক নুরকে আটক করা হয়েছে নাহিদ ইসলাম এখন কোথায়? হাইকোর্টের রায় বাতিল চাইবে রাষ্ট্রপক্ষ: অ্যাটর্নি জেনারেল শনিবার সহিংসতায় মৃত্যু হয়েছে আরো অন্তত সাত জনের কখন ফিরবে ইন্টারনেট সংযোগ - কেউ জানে না রোববার ও সোমবার সাধারণ ছুটি ঘোষণা কারফিউ দিনে ঢাকায় যে চিত্র দেখা গেছে সাতক্ষীরায় ছাত্রদল নেতার ইন্ধনে থানা ঘেরাওয়ের চেষ্টা!

ড্রেন ও ফুটপাত থেকে অবৈধ স্থাপনা সরাতে মাঠে নামলো কক্সবাজার পৌরসভা

চলতি বর্ষা মৌসুমে জলাবদ্ধতায় ডুবে ছিল কক্সবাজার শহরের নিম্নাঞ্চল। বিশেষ করে টানা বৃষ্টিপাতে হোটেল—মোটেল জোনের প্রধান সড়ক পানিতে তলিয়ে যায়। এতে পর্যটকসহ স্থানীয়রা দুর্ভোগে পড়ে। তাই জলাবদ্ধতা নিরসনে এবার মাঠে নামলেন পৌর মেয়র মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী।


বুধবার (১০ জুলাই) সকালে হোটেল মোটেল জোনের ‘বি’ ব্লকের গণপূর্ত উদ্যোনের পাশের গলিতে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়। এসময় ড্রেন ও ফুটপাতের উপর নির্মিত অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেওয়া হয়। পাশাপাশি দখলকারীদের অবৈধ স্থাপনা সরাতে কঠোর হুঁশিয়ারী দেওয়া হয়।


উচ্ছেদ অভিযান শেষে মেয়র মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের রয়েছে পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্রসৈকত। এখানে সারা বছর লাখো পর্যটক আসে। পর্যটকেরা যাতে কক্সবাজারকে একটি সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে দেখতে পাই, এ জন্য পর্যটন নগরীকে সাজাতে জাইকা, ব্র্যাক, ব্যবসায়ী ও নেতৃস্থানীয়দের সমন্বয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তাই শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে ড্রেন ও ফুটপাতের উপর নির্মিত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ এবং পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম শুরু করেছি। আমরা স্থাপনা নির্মাণকারীদের অনুরোধ করছি, যাতে নালার উপর থেকে তাদের অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেয়। আর অনুরোধ না মানলে আমরা কঠোর পদক্ষেপ নিব। এ ক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।


এসময় উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার পৌরসভার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা একেএম তারিকুল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন, ১২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এম.এ মনজুর, ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আকতার কামাল, হোটেল মোটেল গেস্ট হাউস মালিক সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আবুল কাশেম সিকদার, সাধারণ সম্পাদক সেলিম নেওয়াজ ও ব্র্যাকের আরবান ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় প্লিজ প্রজেক্টের প্রজেক্ট ম্যানেজার ফারিয়া আলম রিয়া

Tag