আজব নুর বেগম ফাউন্ডেশন'র উদ্যোগে স্বেচ্ছাসেবীদের উপর অমানবিক হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন কমসূচি অনুষ্ঠিত শাজাহানপুরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে অর্থদন্ড সীমান্ত থেকে দেশের অভ্যন্তরে ১০ মাইল বিজিবির সম্পত্তি ঘোষণা করতে রায় শ্যামনগর মুন্সিগঞ্জ মরমীর কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠন ও বার্ষিক সভা কোটাবিরোধীরা সংস্কার চায় না, তাদের অন্য ‘দূরভিসন্ধি’ আছে: তথ্য প্রতিমন্ত্রী রূপগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ৬ অপহরণকারী আটক ॥ অপহরণ হওয়া ভিকটিম উদ্বার ফুটবলের উন্নয়নে সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার’ জনবল শূন্য ম্যাটস্ নানা সমস্যায় জর্জরিত ৪ বছরেও নিয়োগ হয়নি শিক্ষক পাঠদান ব্যাহত লোহাগড়ার পরিছন্ন ও সৌন্দর্যবর্ধন কর্মসূচির উদ্বোধন নিয়ামতপুরে সাপে কামড়ে এক কৃষকের মৃত্যু, ঝিনাইগাতী সদর ইউনিয়নের জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদত হোসেনের বিরুদ্ধে একটি চক্র অপপ্রচারে লিপ্ত আশাশুনি আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের রুহুল হক এমপির সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় আশাশুনিতে মুস্তাকিমের লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের দাবীতে মানববন্ধন নলছিটিতে যুগান্তর প্রকাশক নুরুল ইসলাম বাবুল'র স্মরণ সভায় অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত পুলিশ সুপার এম,এন মুর্শেদ'র মতবিনিময় কুলাউড়া টানা ৪০ দিন জামাতে নামাজ পড়ে বাইসাইকেলসহ ১৪ কিশোর পেলো পুরস্কার খুলনা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার নির্বাচিত হ‌লেন সাতক্ষীরার মতিউর রহমান সিদ্দিকী পাবিপ্রবিতে ফল উৎসবের আয়োজন মেঘনা নদীতে অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার এবার নৈশ প্রহরীকে উলঙ্গ করে বেঁধে ১১ দোকানে ডাকাতি

বেরোবিতে ইউজিসিকে তোয়াক্কা না করেই কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দিতে তোড়জোড়

রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) নীতিমালা লঙ্ঘন করে অনেকটা গোপনীয়তার মাধ্যমে বেশকিছু কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দেয়ার লক্ষ্যে বাছাই বোর্ডের আয়োজন করা হয়েছে।


শুক্রবার (৩১ মে ২০২৪) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার (৪র্থ গ্রেড) ও সমপর্যায়ের পদে পদোন্নতি দিতে এ বাছাই বোর্ডের আয়োজন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ হাসিবুর রশীদ।


বিষয়টি ইউজিসি'র নজরে আসলে গতকাল বৃহস্পতিবার বোর্ড বন্ধ করতে এ বিষয়ে লিখিতভাবে জানাতে ইউজিসির পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উপ পরিচালক মোহাম্মদ গোলাম দস্তগীর স্বাক্ষরিত চিঠি প্রেরণ করা হয়। তবে এই নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও আজ শুক্রবার বেলা ৩টায় উক্ত বাছাই বোর্ড অনুষ্ঠিত হয়।


এর আগেও কয়েক বার বাছাই বোর্ডের আয়োজন করলে ইউজিসির নিষেধাজ্ঞায় সফল হন নি তিনি। কিন্তু এবার অনিয়ম করে এই পদোন্নতি দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন উপাচার্য। একটু ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে কঠোর গোপনীয়তা রক্ষা করে প্রার্থীদের মোবাইলে কল করে বোর্ডে উপস্থিত হওয়ার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বিষয়টি ইউজিসির নজরে আসলে গতকাল এই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে তারা।


বাছাইবোর্ড উপস্থিত হতে ডাক পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন একাধিক প্রার্থী।


জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার ও সমমর্যাদার চতুর্থ গ্রেড এর পদসমূহে কর্মকর্তাদের নিয়োগের ক্ষেত্রে ইউজিসির বিদ্যমান নীতিমালা অনুযায়ী উম্মুক্ত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দিতে হবে। এ বিষয়ে ২০২১ সালের ৩১ অক্টোবর সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য একটি নির্দেশনা প্রদান করে ইউজিসি। যাতে বলা হয়েছে প্রত্যেক বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজিস্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, অর্থ ও হিসাব এবং লাইব্রেরি এই চার দপ্তরে ৪র্থ গ্রেডভুক্ত অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার বা সমমানের পদ থাকবে। এই পদসমূহে ইউজিসি’র অনুমোদন সাপেক্ষে উন্মুক্ত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সরাসরি নিয়োগ দিতে হবে, পদোন্নতি/আপগ্রেডেশন/পর্যায়োন্নয়ন দেয়া যাবে না। 


ইউজিসির এই নির্দেশনা অমান্য করে বেরোবি’র ভিসি অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার/সমমানের পদে পদোন্নতির জন্য গত ১৯ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে প্রথম বার কর্মকর্তাদের ৪র্থ গ্রেডে পদোন্নতি দেয়ার জন্য বাছাই বোর্ড এর আয়োজন করেছিলেন। বিষয়টি ইউজিসি’র নজরে আসলে ১১ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে পদোন্নতি বা আপগ্রেডেশন কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ প্রদান করে এবং দুই কার্যদিবসের মধ্যে ব্যাখ্যা তলব করেছিল। 


এরপর ২০২৩ সালের ১১ ডিসেম্বর তারিখে পুনরায় একই পদে আপগ্রেডেশনের জন্য বাছাই বোর্ডের সভা আহ্বান করা হলে কমিশন আবারো ১০ ডিসেম্বর ২০২৩ তারিখে পুনরায় এ সংক্রান্ত সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দুই কার্যদিবসের মধ্যে কমিশনকে লিখিতভাবে জানাতে বলে। ফলে দ্বিতীয় দফায় বোর্ডের কার্যক্রম ভেস্তে যায়।


ইউজিসির নিষেজ্ঞার কারনে উপাচার্য অধ্যাপক হাসিবুর রশীদ বাছাই বোর্ডের মাধ্যমে কর্মকর্তাদের আপগ্রেডেশন দিতে না পেরে সরকারি ‘‘চাকরি [স্ব-শাসিত এবং রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানসমূহ] (বেতন ভাতাদি) আদেশ ২০১৫ এর অনুচ্ছেদ ১২’’ এর ভুল ব্যাখাপূর্বক বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তাগণকে ৪র্থ গ্রেড প্রদানের কার্যক্রম গ্রহণ করলে কমিশন দুই দফা চিঠি দিয়ে সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দিলে এই প্রক্রিয়াটিও বাতিল হয়ে যায়। 


ইউজিসির এত আপত্তির পরেও তাদের নির্দেশনা অমান্য করে নতুনভাবে নানা কৌশলে কঠোর গোপনীয়তার মধ্যে আজ ৩১ মে ২০২৪ শুক্রবার বিকেল ৩টায় ৪র্থ গ্রেডে পদোন্নতি দেয়ার জন্য বাছাইবোর্ডের আয়োজন করে। একই সাথে এই নিয়োগ দ্রুত অনুমোদনের জন্য আগামীকাল ১ জুন শনিবার দুপুর ১২টায় সিন্ডিকেট সভা আহ্বান করা হয়েছে। এর আগের উদ্যোগগুলো ভেস্তে যাওয়ায় এবার যাতে নিয়োগ কার্যক্রমের খবর ইউজিসি জানতে না পারে সেজন্য নজিরবিহীন গোপনীয়তা রক্ষা করছেন ভিসি। বাছাই বোর্ডের জন্য প্রার্থীদের কোন কার্ড ইস্যু করা হয়নি, দেওয়া হয়নি এসএমএস। সংস্থাপন শাখার অফিসিয়াল মোবাইল নম্বর থেকে উপ-রেজিস্ট্রার শামীমা সুলতানা বুধবার বিকেল ৫টার পর থেকে ২৫ জন প্রার্থীকে মোবাইলে কল করে আজ শুক্রবার বিকেল ৩টায় প্রশাসনিক ভবনে উপস্থিত হতে বলেন। এরপরেও এটি ইউজিসির নজরে আসলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেয় তারা।


কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, একজন শিক্ষক নেতার স্ত্রী জুনিয়র এক কর্মকর্তা এবং উপাচার্যের কয়েকজন ঘনিষ্ট কর্মকর্তাকে ৪র্থ গ্রেডে প্রমোশন দিতেই মুলত মরিয়া হয়ে উঠেছেন উপাচার্য। এভাবে আপগ্রেডেশন দেয়া হলে অনেক সিনিয়র কর্মকর্তা বঞ্চিত হবেন এবং তারা চাকরির সিনিয়রিটি হারাবেন। 


বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্থাপন শাখা বাছাইবোর্ড আয়োজনের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছে উক্ত বাছাইবোর্ডে উপাচার্যের সভাপতিত্বে ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোঃ মজিব উদ্দিন আহমেদ এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এ বি এম ইফতেখারুল ইসলাম খন্দকার উপস্থিত ছিলেন।


ইউজিসির নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বার বার এভাবে বাছাইবোর্ড আয়োজনের বিষয়ে উপাচার্য প্রফেসর হাসিবুর রশীদের সাথে যোগাযোগ করতে গেলে বোর্ডে থাকার জন্য তিনি কথা বলতে পারবেন না বলে জানান তার পিএ খায়রুল ইসলাম এবং জনসংযোগ কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করতে বলেন তিনি। 


এ বিষয়ে জনসংযোগ ও প্রকাশনা দপ্তরের উপ পরিচালক মোহাম্মদ আলী বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় নীতিমালায় অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার, পরিচালক পদে পদন্নোতির মাধ্যমে নেয়ার উল্লেখ আছে এবং এর আগেও বিশ্ববিদ্যালয়ে চারজনকে অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার পদমর্যাদা দেয়া হয়। তাহলে এখন কেন হবে না? যা হচ্ছে সবই আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুযায়ী হচ্ছে।


বাছাই বোর্ডের সদস্য এবিএম ইফতেখারুল ইসলাম খন্দকার বোর্ড অনুষ্ঠিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ইউজিসির নির্দেশনা বিষয়টি আমি জানিনা, এ বিষয়ে বোর্ড চেয়ারম্যান (উপাচার্য) ভালো বলতে পারবেন। 


ইউজিসির নিষেধাজ্ঞা উপক্ষো করে বার বার এভাবে বাছাইবোর্ড আয়োজনের বিষয়ে উপাচার্য প্রফেসর হাসিবুর রশীদকে একাধিক বার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেন নি। 


এই বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে আজ শুক্রবার সকালে ইউজিসিরি সচিব ড. ফেরদৌস জামান বলেন, আমরা বিষয়টি বিভিন্ন মাধ্যমে জেনে বিশ্ববিদ্যালয়কে চিঠি দিয়েছি, আমরা তো আর পুলিশ না যে এখন গিয়ে ওনার মাথায় একটা বারি মারবো, সে সুযোগ আমাদের নাই। আমরা চিঠি দিয়েছি, এখন করলে আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ যা নিয়ম অনুযায়ী সেটা আমরা নিব। অবৈধভাবে গ্রেড-৪ এ আপগ্রেডেশন দেয়ার কোন সুযোগ নেই সেটাই আমরা জানিয়ে দিয়েছি। এর বাইরে আমার আর কিছু বলার নেই।

আরও খবর

আমাদের আত্মসম্মানবোধ

২২ দিন ৫ ঘন্টা ৪৮ মিনিট আগে







মে দিবসেও ক্লাস নিলেন বেরোবি শিক্ষক

৭২ দিন ১৩ ঘন্টা ৩৮ মিনিট আগে