রাঙামাটিতে বজ্রপাতে নারীসহ ৪ জনের মৃত্যু প্রধান শিক্ষক আবুজার গাফ্ফারীর ঘোড়ার গাড়ি করে বিদায়ী সংবর্ধনা সেন্টমার্টিনে ২৩’শ পরিবারের মধ্যে সরকারি সহায়তার চাল বিতরণ নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সাথে নাগরিক প্লাটফর্ম ও যুব ফোরামের সংলাপ অনুষ্ঠিত সারাদেশে চলাচলকারী আন্তঃনগর ট্রেন বন্ধ থাকবে ঈদের দিন লেগেছে ঈদের আঁচ,অভয়নগরে টুংটাং শব্দে মুখরিত কামারপাড়া জয়পুরহাটে ৫ শত বছরের ঐতিহ্যবাহী ঘুড়ির মেলা মিয়ানমারে সীমান্তে নেই বিস্ফোরণের শব্দ, সরে গেছে যুদ্ধজাহাজও অনিরাপদ ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাট শ্যামনগরে সুবিধাবঞ্চিত মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে 'ভাব বাংলাদেশে'র শিক্ষাবৃত্তি প্রদান টিকিট থাকা সত্ত্বেও চড়া দামে বিক্রি, বিপাকে যাত্রীরা পত্নীতলায় ভুটভুটির ধাক্কায় প্রাণ গেল এক বৃদ্ধের সেবা মুক্ত স্কাউট দলের উদ্যোগে দরিদ্র ও দুস্থ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ দুই শতাধিক পরিবারের মুখে হাসি ফুটালো ‘ভয়েস অব ঝিনাইগাতী’ শিকড় ঝিনাইগাতীর আয়োজনে ঈদুল আযহার পরদিন এসএসসি ও এইচএসসিতে কৃতিত্ব অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংবর্ধনা ও পুরস্কার দেওয়া হবে সড়ক দুর্ঘটনায় শেরপুর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবু তাহের গুরুতর আহত, সুস্থতার জন্য সকলের নিকট দোয়া প্রার্থী সাতক্ষীরায় ২৪১ জনকে ১৭ লাখ ৮৪ হাজার টাকার অনুদানের চেক প্রদান ঈদের ছুটিতে পর্যটক বরণে প্রস্তুত কক্সবাজার টেকনাফ সমুদ্র সৈকতে ভেসে এলো অর্ধগলিত মৃতদেহ সেন্টমার্টিনের নাগরিকদের পাশে সরকার সবসময় আছে

খাবারের জন্য কুকুরের প্রাণপণ লড়াই

মোঃ ফরমান উল্লাহ ( Contributor )

প্রকাশের সময়: 07-07-2023 12:47:55 pm




মোঃ ফরমান উল্লাহ, ভ্রাম্যমান সংবাদদাতা

জন্মের পরই সকল প্রাণির প্রথম চাহিদা হলো খাবারের। এ খাবার সংগ্রহ করতে সকল প্রাণি প্রাণপণ অবিরাম লড়াই করে চলেছে। মানুষ সকাল থেকে রাত অবধি মাঠে-ঘাটে, অফিসে কিংবা হাট-বাজারে কাজ করে প্রধান চাহিদা অন্ন,বস্ত্র,বাসস্থান,চিকিৎসা ও শিক্ষা ব্যয় বহন করতে। 

পশু-পাখি, জন্তু-জানুয়ার বন-জঙ্গল,ঝুপ-ঝাড়, পরিত্যাক্ত স্থানে ঘুরে বেড়ায় নিজের খাবার আহরণ করতে।


গতকাল বৃহস্পতিবার (৬ জুলাই)সকাল ৭.৩০ মিনিটে নেত্রকোণার বারহাট্টা উপজেলার বারহাট্টা বাজার সংলগ্ন কংস নদীর ব্রীজের উপর বসে নদীর  আঁকা-বাঁকা সৌন্দর্য দেখছিলাম।  পাশে বেশ কিছু মানুষ জড়ো হয়ে     কি যেন দেখছে। আমিও এগিয়ে গেলাম। দেখলাম একটি কুকুর নদীর পানিতে সাঁতার কেটে গিয়ে বাঁশের খুটির সাথে অবস্থান করছে। নদীতে হালকা স্রোত তাই সাহস করে হয়তো কুকুরটি সামনে এগুতে পারছে না। লক্ষ্য করে দেখলাম কুকুরটির প্রায় ৩/৪ হাত দূরে মোরগের নাড়ি-ভুরি বাঁশের খুঁটির সাথে আটকে আছে। কচুরি পানার সাথে উজান থেকে নদীর স্রোতে ভেসে আসছে। মানুষের চোখে না পরলেও কুকুরের নাকে ঠিকই ঘ্রাণ লেগেছে। 


কুকুরটির উদ্দেশ্য মোরগের নাড়ি-ভুরি খাওয়া। অনেক কষ্টে প্রাণপণ লড়াই করার পর নাড়ি-ভুরির কিছু অংশ কুকুরটি খেতে পারলেও অধিকাংশ নাড়ি-ভুরি নদীর স্রোতে ভেসে যায়। ফলে কুকুরটিও পানিতে সাঁতার দেয় ভেসে যাওয়া নাড়ি-ভুরি ধরার জন্য। নদীর পানির স্রোতের সাথে শক্তিতে কুলিয়ে উঠতে না  পেরে নদীর তীরে ওঠে আসে।


এ দিকে আরো একটি কুকুর মোরগের নাড়ি-ভুরির জন্য পানিতে নামার অপেক্ষা করতে থাকে। কিন্তু আগের কুকুরটি তীরে ওঠে আসার দৃশ্য দেখে আর সে আর নদীতে নামার সাহস করে নি। 


কুকুরটি কঠোর পরিশ্রম এবং চেষ্টা করেও সম্পূর্ণ  খাবারটি খেতে না পেরে নদীর তীরে এসে ঘেঁউ-ঘেঁউ করতে লাগলো।

Tag
আরও খবর