রোহিঙ্গাদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে মারা গেল ৪ জন সরিষাবাড়িতে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন । নৌকার বিরুদ্ধে নির্বাচনী প্রচারণায় এসে জনগনের রেশানলে এলাকা ছাড়া পুলিশের এসআই উন্নয়ন হয়েছে বলেই মানুষ এখন ত্রাণের বদলে বাঁধ চায়: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির নানান আয়োজনে বরিশালে কবি জীবনানন্দ দাশ’র প্রয়ান দিবস পালিত বরিশালে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন ঝিনাইগাতীতে ১৪ বছর যাবত উল্টে আছে সেতু, সংস্কারের উদ্যোগ নেই শেরপুর জেলা ফুটবল লীগে চকপাঠক ক্রীড়াচক্র ৪-২ গোলে জয়ী। নিরাপদ সড়ক দিবসের দিন সড়কে প্রাণ ঝড়ল শিশুর। মাল্টা চাষে সফলতা পেয়েছেন ওসমান বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি'র ইডেন মহিলা কলেজে পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন। পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা সেই ইকবাল আটক এই প্রথম আমাদের পাশে কোন মেয়র দাড়ালেন, তিনি হলেন গরীবের বন্ধু বরিশালের মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ্ ভাই ইসলাম কখনোই সাম্প্রদায়িকতা সমর্থন করে না : বিএমপি কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বাংলাদেশ সম্পাদক ফোরাম বরিশাল’র নেতৃবৃন্দের সাথে ফোরথট পিআর কর্মকর্তাদের সাক্ষাৎ আসাদুজ্জামান সাদিদের দায়িত্ব নিলেন বরিশাল জেলা প্রশাসক পরিমাপে কারচুপির অপরাধে বরিশালে দুটি তেলের পাম্পমালিককে জরিমানা ৮৪ রানের জয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে বাংলাদেশ পাপুয়া নিউগিনিকে ১৮২ রানের টার্গেট দিল বাংলাদেশ

প্রেমের সালিশে গিয়ে বিয়ে, চেয়ারম্যানকে তালাক দিল সেই কিশোরী

আহসান ইমন - এডিটর

প্রকাশের সময়: 27-06-2021 10:43:29

Photo caption :

পটুয়াখালীর বাউফলের কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার (৬০)। শাহিন হাওলাদার ২১ জুন অনুষ্ঠিত কনকিদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা মার্কা নিয়ে দ্বিতীয়বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।




আর নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার চার দিন পর শুক্রবার প্রেমের সম্পর্ক মেটাতে সালিশে গিয়ে ওই কিশোরীকে পছন্দ করেন। আর ওই দিনই তিনি ১৬ বছরের কিশোরীকে বিয়ে করেন। বিয়ের পরদিনই অষ্টম শ্রেণির সেই কিশোরী (১৪) তালাক দিয়েছেন চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদারকে (৬০)। যিনি বিয়ে পড়িয়েছেন তাঁর মাধ্যমে শনিবার সন্ধ্যার দিকে চেয়ারম্যানকে তালাক দিয়ে পরিবারের কাছে ফেরে কিশোরী।


কিশোরী ও তাঁর বাবা মুঠোফোনে এ কথা জানিয়েছেন। চেয়ারম্যান নিজেও মুঠোফোনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।


শাহিন হাওলাদার কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।



প্রেমের টানে এক তরুণের হাত ধরে বাড়ি ছেড়েছিল ওই কিশোরী। বিষয়টি জানার পর কিশোরীর বাবা নালিশ দিয়েছিলেন চেয়ারম্যানের কাছে। চেয়ারম্যান সালিসে বসার পর মেয়েটিকে পছন্দ হয়ে যায়। পরে তিনি ওই কিশোরীকে (১৪) বিয়ে করেন।


ওই কিশোরী শনিবার বলেন, ‘চেয়ারম্যানের কাছে গিয়েছিলাম পছন্দের ব্যক্তিকে বিয়ে করতে। কিন্তু বিয়ে করতে হয়েছে চেয়ারম্যানকে। আমি এক রাত চেয়ারম্যানের বাসায় থাকলেও কোনোভাবেই তাঁকে আমি স্বামী হিসেবে মেনে নিতে পারিনি। চেয়ারম্যান তা বুঝতে পেরে তালাক দেওয়ার ব্যবস্থা করেন।’



এ বিষয়ে চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার বলেন, ‘সালিস বৈঠকে মেয়ের বাবা কোনোভাবেই মেয়ের পছন্দের ছেলের কাছে বিয়ে দিতে রাজি ছিল না। তাই কাজি ডেকে বিয়ে করেছিলাম। কোনো প্রভাব কিংবা জোর করিনি। যেহেতু মেয়ে বিয়েটা ভালোভাবে মেনে নিচ্ছিল না। তাই যিনি বিয়ে পড়িয়েছেন তাঁর মাধ্যমে শনিবার সন্ধ্যার দিকে মেয়েটি আমাকে তালাক দিয়েছে এবং তাকে তাঁর বাবার হাতে তুলে দিয়েছি।’


স্থানীয় লোকজন ও মেয়েটির পরিবারের ভাষ্য, কাজি ডেকে শুক্রবার দুপুরে পাঁচ লাখ টাকা দেনমোহরে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করেন চেয়ারম্যান। বিয়ের কাবিননামায় মেয়েটির জন্মতারিখ উল্লেখ করা হয়েছে, ২০০৩ সালের ১১ এপ্রিল। কিন্তু বিদ্যালয়ে থাকা জন্মনিবন্ধন ও পঞ্চম শ্রেণি পাসের সনদ বলছে, মেয়েটির জন্ম ২০০৭ সালের ১১ এপ্রিল। বিয়ের পর মেয়েটিকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান চেয়ারম্যান। তবে বাড়িতে তাঁর প্রথম স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যরা ছিলেন না।


চেয়ারম্যানের সঙ্গে বিয়ের খবর শুনে শুক্রবার কিশোরীর প্রেমিক তরুণটি আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বলে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন। অচেতন অবস্থায় শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান স্থানীয় গ্রাম পুলিশ ফিরোজ আলম।


শনিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন তরুণটি বলেন, ‘ওকে আমার কাছে এনে দেন। আমি ওকে ছাড়া বাঁচব না।’